Home / অনান্য / অস্ট্রেলিয়া ও গুয়ামে ঘাঁটি গড়বে যুক্তরাষ্ট্র . চীনকে মোকাবিলায়

অস্ট্রেলিয়া ও গুয়ামে ঘাঁটি গড়বে যুক্তরাষ্ট্র . চীনকে মোকাবিলায়

চীনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় গুয়াম ও অস্ট্রেলিয়ায় মার্কিন ঘাঁটি তৈরি করবে পেন্টাগন। যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা গত সোমবার এ কথা বলেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বৈশ্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করার পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগ এ পদক্ষেপ নিয়েছে। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন দায়িত্ব নেওয়ার পরপরই গত ফেব্রুয়ারি মাসে বৈশ্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনকে নির্দেশ দেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনফাইল ছবি: এএফপি গত মার্চ মাস থেকেই পরিস্থিতি পর্যালোচনা শুরু করেন অস্টিন। অস্টিনের প্রতিবেদনে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে সৈন্য ও সরঞ্জামের সংখ্যা কমিয়ে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে আরও বেশি গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে। এই পর্যালোচনার নথি গোপনীয় বিষয় হলেও প্রতিরক্ষা বিভাগের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এ বিষয়ে কিছু তথ্য সামনে এনেছেন।

বিজ্ঞাপন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগের নীতিনির্ধারণ-বিষয়ক ডেপুটি আন্ডারসেক্রেটারি মারা কার্লিন বলেন, বাইডেন সম্প্রতি অস্টিনের বৈশ্বিক অবস্থা পর্যালোচনা ও পরামর্শগুলোর অনুমোদন দিয়েছেন। এতে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল বেশি গুরুত্ব পেয়েছে। কারণ, অস্টিন তাঁর পর্যালোচনায় দেখিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগের জন্য চ্যালেঞ্জ বাড়িয়ে তুলছে চীন। বেইজিংয়ের সঙ্গে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ায় বাইডেন প্রশাসন চীনকে প্রতিহত করাকে প্রধান বিদেশি নীতিগুলোকে অগ্রাধিকার দিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে তাইওয়ানের বিষয়টিও। পেন্টাগনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা চীনের সামরিক বাহিনীকে আধুনিকীকরণের প্রচেষ্টা সম্পর্কে প্রকাশ্যে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। গত মাসে মার্কিন সেনাবাহিনীর জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান মার্ক মিলে বলেন, চীন সম্প্রতি হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে। প্রতিরক্ষা বিভাগের কর্মকর্তা আরও বলেন, চীনকে প্রতিহত করতে অস্টিনের পর্যালোচনা প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগকে গুয়াম ও অস্ট্রেলিয়ায় অবকাঠামো বৃদ্ধি করতে বলা হয়। এ ছাড়াও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জজুড়ে সামরিক নির্মাণকে অগ্রাধিকার দিতে বলা হয়।

এ ছাড়াও সামরিক অংশীদারত্ব কার্যক্রমের জন্য বৃহত্তর আঞ্চলিক সুযোগ গ্রহণের কথা বলা হয়। অস্টিনের প্রতিবেদনে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে সৈন্য ও সরঞ্জামের সংখ্যা কমিয়ে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে আরও বেশি গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে। তবে রাশিয়া বিষয়ে পদক্ষেপ নিয়ে বিস্তারিত তথ্য দেননি প্রতিরক্ষা বিভাগের কর্মকর্তা। মার্কিন সামরিক বাহিনী পূর্ব ইউরোপের জন্য নতুন করে প্রস্তুতি গ্রহণ করছে বলে জানানো হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সমর্থন চালিয়ে যাওয়ার কথা পর্যালোচনায় তুলে এনেছেন অস্টিন। পর্যালোচনায় আফগানিস্তানকে রাখা হয়নি। সেটি জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের পৃথক পর্যালোচনা উঠে এসেছে। পর্যালোচনায় অবশ্য পারমাণবিক বিষয়গুলোর পাশাপাশি মহাকাশ ও সাইবার ক্ষেত্রের বিষয়গুলো যুক্ত করা হয়নি। এগুলো আলাদা বিভাগ পর্যালোচনা করে থাকে।

About admin

Check Also

ডাচ-বাংলা ব্যাংকে একাধিক পদে চাকরির সুযোগ, বয়সসীমা ৪৫ বছর

ডাচ-বাংলা ব্যাংকে একাধিক পদে চাকরির সুযোগ, বয়সসীমা ৪৫ বছর

বেসরকারি ব্যাংক ‘ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড’ সম্পতি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটি একাধিক পদে লোকবল নিয়োগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.