Home / অনান্য / পেশা যাই হোক তারা আমার বন্ধু: মাশরাফি

পেশা যাই হোক তারা আমার বন্ধু: মাশরাফি

বাংলাদেশে ক্রিকেট দলের সাবেক সফলতম অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর’্তুজা। যার শৈশব কে’টেছে নড়াইলে। জাতীয় দল থেকে অবসর নেওয়ার পরে বর্তমানে জনপ্রতিনিধি হিসেবেই মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন তিনি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় মাশরাফির একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, তার বাল্যবন্ধু রবি জুতা সেলাই করছেন। হুডি ও মাস্ক পরে পায়ের ওপর পা তুলে পাশে বসে গল্প করছেন মাশরাফি।

নড়াইল শহরে জুতা সেলাইয়ের কাজ করে রবি। শহরের চৌরাস্তায় দাঁড়িয়ে রবির নাম বললে, একনামে সকলেই তাকে চিনবে। একটি

মেহগনী গাছের নিচে বসে সকাল থেকে রাত অবদি অন্যের পায়ের জুতা-স্যান্ডেল সেলাই বা পালিশ করেই যার নিজের এবং পরিবারের অন্যদের পেট চলে। সেই বন্ধুর সঙ্গেই সময় পেলে আড্ডায় মেতে উঠেন মাশরাফি।

এ বি’ষয়ে রবি বলেন, ‘আমি মুচি, জুতা স্যান্ডেলের কাজ করি চুরি তো করি না। আমা’র বন্ধু মাশরাফি এমপি ও ক্রিকেট তারকা। সে যতটা

পারে আমা’দের সাহায্য করে। সে নড়াইলে আসলে আমা’র সঙ্গে দেখা করে। তেমনি শনিবারও এসেছিল। কে বা কারা’ ছবি তুলে ফেসবুকে দিয়েছে। এজন্যই এতো আলোচনা সমালোচনা। মাশরাফির সঙ্গে আমা’র বন্ধুত্ব আজীবনের।’

মাশরাফির আরেকজন বন্ধু সুমন। পেশায় ঝাড়ুদার। মাশরাফির পুরাতন বন্ধুদের মধ্যে একজন একসাথে ক্রিকেট খেলা থেকে শুরু করে সব সময় পাশে থাকতেন। মাশরাফি নড়াইলে আসলে বা ঢাকায় থাকলেও, সকলের সাথে যোগাযোগ রাখেন। সময় পেলেই চলে আসে নড়াইলে। সুমন বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই আমর’া একসাথে চলাফেরা, খেলাধুলা করে বড় হয়েছি। মাশরাফি এখন আমা’দের মতো মানুষের সাথে না মিশলেও তো পারে। কিন্তু নড়াইলে আসার আগেই মাশরাফি আমা’দের সাথে যোগাযোগ করে, তবেই আসবে।’

এ বি’ষয়ে মাশরাফি বলেন, ছোটবেলায় যাদের সঙ্গে খেলা করে চিত্রা নদীতে সাঁতার কে’টে বড় হয়েছি তারা আমা’র বন্ধু। তারা যে পেশায় থাকুক তাতে কী আসে যায়।

About admin

Check Also

বয়স কমাতে নিজের ছেলে কে ভাই বলে পরিচয় দেন শ্রাবন্তী

নিজে’র কাজ ও ব্য’ক্তি জীবন নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন টলিসু’ন্দরী শ্রাবন্তী।এরই মাঝে সামনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *