বী’র্য’পা’ত ব’ন্ধ রেখে যে’ভাবে দী’র্ঘ’ক্ষ’ন শা’রী’রি’ক মি’লন করবেন!👇

0
15

শিরোনাম দেখে অবাক হচ্ছেন? মনে হচ্ছে এটা আবার কিভাবে সম্ভব! অথচ এমনটাই দাবি করছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী। তার কথা অনুযায়ী, স্বামী স্বপ্নে এসে ভালবেসে গেছেন। স্বামীর সেই ভালবাসায় গর্ভবতী হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি ভারতের বিহার রাজ্যের এমন

 

 

ঘটনায় ডাক্তারি পরীক্ষায় দেখা যায় গর্ভের শি’শুটির বয়স প্রায় তিন মাস। বোনের কাছে স্ত্রীর এই গর্ভধারণের খবর শুনে জ’লদি করে স্বামী বাড়ি চলে আসেন। যখন তিনি স্ত্রী’কে এই ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তখন স্ত্রী ঐ স্বপ্নের গল্প শোনান।

 

 

তবে স্বামী মোটেই এই গল্প বিশ্বাস করেননি। তিনি গ্রাম প’ঞ্চায়েতকে জানান এবং অ’ভিযোগ করেন প’র’কী’য়া’র ফলেই তার স্ত্রী গর্ভবতী হয়েছেন। মূলত নিজের অ’বৈ’ধ স’ন্তানকে জা’য়েজ করতেই এমন দাবি ক’রেছিলেন সেই নারী। পরে স্বা’মীর প’রিবারের লোকজন তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। তাদের অ’ভিযোগ, পূর্ব পরিচিত এক যুবকের সঙ্গে প’র’কী’য়া’তে জড়িয়ে পড়েই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন ওই গৃহবধূ।

৫৩ বছর পর ফেরত এলো হারানো মানিব্যাগ এক ব্যক্তি ৫৩ বছর পর তার হারানো মানিব্যাগ ফিরে পেয়েছেন। ওই ব্যক্তির নাম পল গ্রিশাম বলে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে। জানা যায়, সম্প্রতি হুট করেই অপরিচিত কিছু ব্যক্তি তার সঙ্গে যোগাযোগ করে ডাকযোগে মানিব্যাগটি পাঠিয়ে দেয়। পল গ্রিশাম বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সান ডিয়েগোর অধিবাসী। তার বয়স এখন ৯১ বছর। নৌবাহিনীর আবহাওয়াবিদ হিসেবে কাজ করতেন তিনি।

 

 

সেই কাজেই গিয়েছিলেন অ্যান্টার্কটিকায়। তখন তার বয়স ছিল ৩৮ বছর। ওই সময়ই হারিয়ে গিয়েছিল মানিব্যাগটি। যদিও পল গ্রিশামের এখন আর মনেই নেই যে তিনি মানিব্যাগটি হারিয়েছিলেন কি না! ফক্স নিউজের খবরে বলা হয়েছে, গত শনিবার ডাকযোগে মানিব্যাগটি ফেরত পান গ্রিশাম। কর্মসূত্রে অ্যান্টার্কটিকায় তিনি ১৩ মাস ছিলেন। সেই সময় মানিব্যাগ হারালেও একসময় তা ভুলেই গিয়েছিলেন। এত এত বছর ধরে কে আর সেই কথা মনে রাখে? কিন্তু সম্প্রতি কিছু অপরিচিত ব্যক্তি তাকে খুঁজে বের করেন এবং ডাকযোগে পুরোনো মানিব্যাগটি ফেরত দেন। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনপিআরকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পল গ্রিশাম বলেছেন, আমি অবাক হয়ে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here