<
JOB

চাকরির আশায় লক্ষ টাকা হারিয়ে, পাল্টা ফাঁদে ফেললেন প্রতারককেই

রেলে চাকরির বিনিময়ে এক ব্যক্তিকে ১ লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন। হাতে এসেছিল ওই চাকরির নিয়োগপত্রসহ রেলের পরিচয়পত্রও। তবে চাকরিতে যোগদানের সময় জানলেন, সবকিছুই ভুয়া। প্রতারিত হয়ে ওই ব্যক্তিকেই টাকার ফাঁদে ফেলে পুলিশে ধরিয়ে দিলেন পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়ার যুবক অনন্তকিশোর।

রোববার (৩ অক্টোবর) অভিযুক্তসহ তিন জনকে আটক করেছে বাঁকুড়ার ওন্দা থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওন্দার দুবড়াকোনের বাসিন্দা অনন্তকিশোর চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে বাঁকুড়া শহরের ফাঁসিডাঙা এলাকার বাসিন্দা বিল্টু কর্মকারকে আটক করেছে তারা। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর আরও দুই জনকে আটক করা হয়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকা।

অনন্তকিশোরের দাবি, ১ লক্ষ টাকার বিনিময়ে পূর্ব রেলের গ্রুপ ‘ডি’ পদে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিল্টু। ছয় মাস ধরে কয়েক দফায় বিল্টুকে টাকা দেন তিনি। সপ্তাহখানেক আগে ওই চাকরির নিয়োগপত্র এবং পূর্ব রেলের পরিচয়পত্র হাতে পান অনন্তকিশোর। তবে নিয়োগপত্রে রেলের ওন্দা ডিভিশনে যোগদানের কথা লেখা থাকায় তার সন্দেহ হয়।

তারপর রোববার চাকরিতে যোগ দিতে গিয়ে জানতে পারেন, পুরো বিষয়টিই ভুয়া। পূর্ব রেলে ওন্দা ডিভিশন বলে কোনও বিভাগ নেই।

অনন্তকিশোর বলেন, রেলের লোগো দেওয়া চাকরির নিয়োগপত্রে ওন্দা ডিভিশনে কাজে যোগদানের কথা লেখা ছিল। তবে ওন্দায় রেল স্টেশন থাকলেও ওই নামে কোনও ডিভিশন নেই। ফলে সন্দেহ হয়। রোববার ওন্দা স্টেশনে গিয়ে কাজে যোগ দিতে গিয়ে জেনেছি, পুরোটাই ভুয়া।

এর পরই বিল্টুকে হাতেনাতে ধরতে ফাঁদ পাতেন অনন্তকিশোর। আরও টাকা দেওয়ার টোপ ফেলে রোববার সকালে বিল্টুকে বাঁকুড়ার লালবাজারে ডেকে পাঠান। টাকা নিতে এলে স্থানীয় বাসিন্দারা বিল্টুকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করে। এই প্রতারণা চক্রের অন্যদের খোঁজ করছে পুলিশ।

পুলিশের দাবি, জিজ্ঞাসাবাদে প্রতারণার কথা স্বীকার করেছে বিল্টু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *