এই ১০টি সাধারন ল’ক্ষ’ণই বলে দেবে আপনার কি’ড’নি ড্যা’মে’জ হতে চলেছে, আজই স’ত’র্ক হন

কিডনির অ’সু’খকে নিরব ঘা’ত’ক বলা হয়। চুপিসারে এই রো’গ আপনার শরীরে বাসা বেঁ”ধে আপনাকে শে’ষ করে দেয়।

সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে মা’রা’ত্নক স্বাস্থ্য স’ম’স্যা’গুলোর মধ্যে কি’ড’নি ড্যা’মে’জ ক্যা’ন্সা’র, হা’র্ট অ্যা’টা’কের পর অবস্থান করছে। শুধুমাত্র আ’মেরিকাতে প্রায় ২৬ মিলিয়ন মানুষ কি’ড’নি স’ম’স্যা’য় ভু’গ’ছেন। আ’ত’ঙ্কের বিষয় হল এর মধ্যে বেশিরভাগ মানুষই জানেন না যে তারা কি’ড’নি ‘স’ম’স্যায় ভু’গ’ছেন। যার ফলশ্রুতিতে সময়মত চি’কি’ৎসার অভাবে অকাল হা’রা’তে হচ্ছে প্রা’ণ। কিছু সাধারণ লক্ষণ দেখে বুঝে নিতে পারেন আপনার কি’ড’নিটি ভাল আছে কিনা।

১. প্র’স্রা’বে স’ম’স্যা: তুলনামূলকভাবে প্র’স্রা’ব কম হওয়া কি’ড’নি রো’গে’র অন্যতম একটি লক্ষণ। শুধু তাই নয় রাতে ঘন ঘন প্র’স্রা’বের বেগও কি’ড’নি স’ম’স্যার লক্ষণ প্রকাশ করে। সাধারণত কি’ড’নির ফি’ল্টা’র ন’ষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণে এই ধরণের স’ম’স্যা দেখা দেয়।

২. প্র’স্রা’বে র’ক্ত: সু’স্থ কি’ড’নি সাধারণত শরীরের ভিতরে র’ক্তে থাকা ব’র্জ্য পদার্থ প্র’স্রা’বের সাথে বের করে দেয়। কি’ড’নি ক্ষ’তি’গ্র’স্ত হলে প্র’স্রা’বের সাথে ব্লা’ড সেল বের হয়ে যায়। সাধারণত কি’ড’নি পাথর, কি’ড’নি ই’ন’ফে’ক’শন হলে এই স’ম’স্যা দেখা দিয়ে থাকে। এছাড়া প্র’স্রা’বে অনেক বেশি ফেনা দেখা দিলে বুঝতে হবে যে, প্র’স্রা’বের সাথে প্রো’টি’ন বের হয়ে যাচ্ছে। প্র’স্রা’বে অ্যা’ল’বুমি’ন নামক প্রো’টি’নের উপস্থিতির জন্যই এমন হয়।

৩. প্র’স্রা’বের সময় ব্য’থা: প্র’স্রা’বের সময় ব্য’থা হওয়া কি’ড’নির স’ম’স্যা’র আরেকটি লক্ষণ। মূলত প্র’স্রা’বের সময় ব্য’থা, জ্বা’লা’পো’ড়া- এগুলো ই’উ’রি’নারি ট্র্যা’ক্ট ই’ন’ফে’ক’শনের ল’ক্ষণ। যখন এটি কি’ড’নিতে ছড়িয়ে পড়ে তখন জ্ব’র হয় এবং পিঠের পেছনে ব্য’থা করে।

৪. পায়ের গোড়ালি ও পায়ের পাতা ফু’লে গেলে: হ’ঠাৎ করে পায়ের পাতা এবং গো’ড়া’লি ফুলে যাওয়া কি’ড’নি রো’গে’র অন্যতম ল’ক্ষ’ণ। কি’ড’নির কা’র্য’ক্ষ’মতা কমে গেলে দেহে সো’ডি’য়ামের পরিমাণ কমে যায়, যার কারণে পায়ের পাতা, গো’ড়া’লি ফু’লে যেয়ে থাকে।

৫. খাবারে অ’রু’চি: বিভিন্ন কারণে খাবারে অ’রু’চি হতে পারে। কিন্তু এটি ঘ’ন ঘ’ন খাবারে অরুচি হওয়া, ব’মি বমি’ ভা’ব লাগাকে অ’ব’হেলা করবেন না। শরীরে বি’ষা’ক্ত প’দা’র্থ উৎপাদন হওয়ার কারণে এই ধরণের স’ম’স্যা দেখা দিয়ে থাকে।

৬. চোখের চারপাশ ফুলে যাওয়া: যখন কি’ড’নি থেকে বেশি পরিমাণে প্রোটিন প্র’স্রা’বের সাথে বের হয়ে যায়, তখন চোখের চারপাশ ফুলে যায়। তাই এই স’ম’স্যাকে অ’ব’হেলা না করে দ্রুত চি’কি’ৎস’কের পরাম’র্শ গ্রহণ করা উচিত।

৭. মাং’স’পে’শিতে টা’ন: আপনি হয়তো শুনে থাকবেন ই’লে’ক্ট্রো’লাইট উপাদানের ভা’র’সা’ম্যহীনতার কারণে কি’ড’নি স’ম’স্যা হয়ে থাকে। আর এই উপাদানটি কমে গেলে মাং’স’পে’শী টা’ন, খিঁ’চু’নি স’ম’স্যা দেখা দিয়ে থাকে।

৮. ত্বকে রেশ এবং চুলকানি দেখা দেওয়া: র’ক্তে মিনারেল এবং পুষ্টি উপাদান ভা’র’সাম্যহীন হয়ে পড়লে ত্বকে রেশ এবং চুলকানি দেখা দিয়ে থাকে। মূলত কি’ড’নি সঠিকভাবে কাজ না করলে শরীরে মিনারেল এবং পুষ্টি উপাদানের মধ্যে ভা’র’সাম্যহীনতা দেখা দিয়ে থাকে।

৯. অনেক বেশি ক্লা’ন্ত অনুভব হওয়া, ম’নোযো’গ কমে যাওয়া: কি’ড’নির কা’র্যক্ষ’ম’তা কমে গেলে র’ক্তে দূ’ষি’ত এবং বি’ষা’ক্ত পদার্থ উৎ’পন্ন’ হয়। যার কারণে আপনি ক্লা’ন্ত, দু’র্ব’ল অনুভব করেন। এমনকি কাজে ম’নো’যো’গ হা’রি’য়ে ফেলেন। এই সময় র’ক্ত স্ব’ল্প’তা দেখা দিয়ে থাকে। দু’র্ব’লতা অনুভব করার আরেও একটি কারণ এটি।

১০. ছোটো ছোটো শ্বা’স: কি’ড’নি রো’গে ফু’স’ফু’সে তরল পদার্থ জমা হয়। এ ছাড়া কি’ড’নি রো’গে শরীরে র’ক্ত’শূন্যতাও দেখা দেয়। এসব কারণে শ্বা’সের স’ম’স্যা হয়, তাই অনেকে ছোট ছোট করে শ্বা’স নেন।’

সাধারণ এই লক্ষণগুলো দেখা দেওয়ার সাথে সাথে কি’ড’নি পরীক্ষা অথবা চি’কি’ৎস’কের পরাম’র্শ নেওয়া উচিত। একটি ছোট অ’ব’হেলা কে’ড়ে নিতে পারে আপনার জীবন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *